পরিত্রাণ কামনা

এই মৌনতা আর সয় না, কোলাহলের অপর পিঠই যেন। সাদা কাগজের কালো অক্ষর কিংবা ভার্চুয়াল পাতার রঙিন অক্ষর – যাই বলো সব কিছু অসহ্য লাগে। অথচ আমি তো এই সবকিছুকেই ভালোবাসতাম! পষ্ট টের পাই, ডুবে…

রাতের বাসে একলা জাগা পথিক

ব্রিজের রেলিং শা শা করে পেছনে ছুটছে বন্ধু, স্বজন আর মা’র স্মৃতি সদ্য অতীত তবে ভগ্ন লাল চাঁদটার সম্ভবত অতীত নাই নাকি তার আড়ালে অন্য কেউ বর্তমান!

প্রজন্ম

দুই বৃদ্ধ মুখোমুখি জীবন, জগত ছাড়িয়ে অসীমের পানে ছুটে চলছে তাঁদের খোশগল্প রেলের সমান্তরাল পাতের উপর ধাবমান চাকার মতো। বিভূতির অপুর মতো নিস্পলক চেয়ে দেখছি, কিছুটা শুনছিও বটে। আমরা সবাই চাকার উপর ছুটে চলছি, এটুকুই…

শৈশব

পাখিদের প্রার্থনা চলছে প্রার্থনার আওয়াজ বাড়ছে, বাড়ছে, বাড়ছে কর্কশ কাকপক্ষীও বাদ যায়নি; অতঃপর, সব শান্ত করে দিয়ে জীবিকার সন্ধানে বেরিয়ে পড়া। মেঘ ঠেলে ঠেলে শৈশবে হাজির হলাম তখন প্রতিটা সকাল এমন ছিল! ৮ মে’ ১৪…

নিশাচরের ভাবনা

দানব আকাশটাকে আলো দিতে পূর্ণিমার চাঁদটা প্রাণপনে খেটে মরছে। কবিরা আমাকে বলেছিল, তারাগুলো নাকি মিটিমিটি জ্বলে। কই? তারাগুলো কেমন স্থির হয়ে আছে। কী মিথ্যা কথাই না বলতে পারে কবিরা ! কখন আসবে ক্লান্তি? নাকি তার…